ধর্মঘটে কড়া অবস্থান রাজ্য সরকারের,৭ থেকে ৯ জানুয়ারী ছুটি বাতিল সরকারী কর্মচারীদের

516

ওয়েব ডেস্ক, ৬ জানুয়ারীঃ কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনে সামিল হয়ে কেন্দ্রীয় শ্রমিক ও গণ সংগঠন গুলির আহ্বানে ৮ জানুয়ারী ভারত বনধের দিনই নয় তাঁর আগে ও পরে অর্থাৎ ৭ থেকে ৯ জানুয়ারী পর্যন্ত সরকারী ছুটি বাতিল করল নবান্ন। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ সহ একাধিক ইস্যুকে সামনে রেখে বাম শ্রমিক সংগঠন-সহ বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংগঠন আগামী ৮ জানুয়ারী দেশ জুরে সাধারণ ধর্মঘটের আহ্বান জানিয়েছে।

এরই প্রেক্ষিতে সোমবার রাজ্যের অর্থ দফতর থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ৮ জানুয়ারি, বুধবারই শুধু নয় তার আগের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার ও পরের দিন বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৭ জানুয়ারি ও ৯ জানুয়ারিও কোনও ছুটি দেওয়া হবে না সরকারী কর্মচারীদের। ওই দিনগুলিতে সব সরকারি দফতরেই স্বাভাবিক কাজকর্ম চালু থাকবে।

অর্থ দফতরের এই বিজ্ঞপ্তিতে স্পষ্টই বলা হয়েছে, বুধবার অর্ধদিবস কিংবা পূর্ণদিবস কোনও ছুটিই দেওয়া হবে না আসে। যদি কেউ অফিসে না আসেন, তবে তাঁর একদিনের বেতন ও কর্মদিবস কাটা যাবে। এর থেকেই স্পষ্ট অন্য সব ধর্মঘটে রাজ্য সরকার যে অবস্থান নেয় এই ক্ষেত্রেও তা নেওয়া হয়েছে। এর সঙ্গে কোনওরকম আপোষ করা হবে না।

কেবলমাত্র কয়েকটি ক্ষেত্র ছাড়া বাকি কোনও ক্ষেত্রেই কোনও ছাড় দেওয়া হবে না। সরকারের এই বিজ্ঞপ্তি থেকেই স্পষ্ট ধর্মঘটের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থানই নেবে রাজ্য সরকার।

এদিনই কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আমরা এই ইস্যুর সমর্থক হতে পারি, কিন্তু কোনও অবস্থাতেই ধর্মঘটকে সমর্থন করব না। মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পরেই নবান্ন থেকে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়।