কং ও বামেদের ডাকা ধর্মঘটে বিক্ষিপ্ত অশান্তি,গ্রেফতার সুজন চক্রবর্তী

132

ওয়েব ডেস্ক, ৮ জানুয়ারিঃ কং ও বামেদের ডাকা ধর্মঘটে বিক্ষিপ্ত অশান্তি। যাদবপুরে ট্রেন অবরোধ। দফায় দফায় সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর সঙ্গে পুলিশের বচসা। গ্রেফতার করা হয় সুজন চক্রবর্তীকে। মৌলালিতে গ্রেফতার অনাদি সাহু-সহ বাম নেতারা। বেলগাছিয়ায় সিপিএম-তৃণমূল সংঘর্ষ। ইতিমধ্যেই বিশাল পুলিশ বাহিনী এবং র্যা ফ ওই জায়গার দখল নিয়েছে।বাস ও পুলিশের গাড়িতে ভাঙচুরের পর থেকে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যাদবপুরের পরিস্থিতি। আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ জানাচ্ছিলেন ধর্মঘটীরা।

জানা গিয়েছে বাম নেতা সুজন চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করার পর থেকে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। তার পর থেকে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে ওঠে। মারমুখী ধর্মঘটীদের সরানোর জন্য লাঠি চার্জ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়া জানা যাচ্ছে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও জানা গিয়েছে বেশ কয়েক জায়গাতে জোর করে বন্ধ করা হয়েছে দোকানপাট। বনধে বিক্ষিপ্ত অশান্তি জেলায় জেলায়। উত্তরপাড়া, রিষড়ায় রেল অবরোধ। শ্রীরামপুরে পুলিশের লাঠিচার্জ। বর্ধমানে জোর করে বনধ পালন।

উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে সকাল থেকে বনধের সমর্থনে পথে নামেন বাম নেতা-কর্মীরা৷ অপরদিকে কোচবিহারের বাসে ভাঙচুরের ঘটনা সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে কোচবিহার থেকে তুফানগঞ্জগামী একটি বাসে আক্রমণ করেন ধর্মঘট আন্দোলনকারীরা। চলন্ত বাসে পাথর ছোঁড়ার ফলে আতঙ্কে নেমে গিয়েছেন বাসের যাত্রীরা। তবে জানা গিয়েছে এই ঘটনায় যুক্ত ২ জনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে।

অন্যদিকে চাঁপাডালি মোড়ে শুরু হয় পথ অবরোধ৷ পথ অবরোধ তুলতে গেলে পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা হয় ধর্মঘটীদের৷ পরে হেলাবটতলায় কৌটো বোমা উদ্ধার করে পুলিশ৷ তড়িঘড়ি তা নিস্ক্রিয় করা হয়।কেন্দ্রীয় সরকারের একাধারে বিরুদ্ধে একসঙ্গে এদিন পথে নেমেছেন বাম এবং কংগ্রেস। আর সকাল থেকে বিক্ষিপ্ত ঘটনার চিত্র সামনে এসেছে। বনধের কারণে বেশ কয়েক জায়গাতে ব্যহত হয়েছে রেল পরিষেবা। অশোকনগরেও রেল অবরোধ শুরু করেন ধর্মঘটীরা৷