চুরি করতে আসা ব্যক্তিকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে

70

প্রসেনজিৎ রায়, পূর্ব মেদিনীপুরঃ চুরি করতে আসা ব্যক্তিকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভগবানপুরে। যদিও গ্রামবাসীদের বক্তব্য, জনতার হাত থেকে বাঁচতে নিজেই ঝুলে পড়েছে চোর।

ভগবানপুর থানার সিমুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার রামপুর গ্রাম। ওই গ্রামের মনোরঞ্জন দাসের নির্জন বাড়িতে রবিবার রাতে চোর আসে। খবর পেয়ে যায় গ্রামের বাসিন্দারা। তারপর পুরো বাড়ি ঘিরে ফেলে রামপুর গ্রামের বাসিন্দারা। এরপর খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। ভগবানপুর থানার পুলিশ এসে দোতলা বাড়ির ওপর তলার ঘরে সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলন্ত এক ব্যক্তির মৃতদেহ দেখতে পায়। মৃত ওই ব্যক্তির নাম দেবাশীষ ঘোড়ই। বাড়ি পাশের গ্রাম বিভীষনপুরে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মৃত ব্যক্তির পরিবারের লোকজন ও গ্রামবাসীরা।

তাদের অভিযোগ,রামপুর গ্রামের লোকজন দেবাশীষকে মেরে ঝুলিয়ে দিয়েছে। এরপরই মৃতদেহ উদ্ধার করতে পুলিশকে বাঁধা দেয় বিভীষনপুর গ্রামের বাসিন্দারা।

যদিও বিভীষনপুর গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ অস্বীকার করেছে রামপুর গ্রামের বাসিন্দারা। তাদের বক্তব্য চুরি করতে আসা ব্যক্তিকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে রামপুর গ্রামের লোকজন। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। বাঁচার উপায় নেই। এই ভেবে নিজেই আত্মহত্যা করেছে চোর।

শেষ পর্যন্ত গ্রামবাসীদের বুঝিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে পাঠাচ্ছে পুলিশ। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে  পুরো এলাকায়।