অযোধ্যাতেই মসজিদের জন্য ৫ একর জমি বরাদ্দ করল যোগী সরকার

311

ওয়েব ডেস্ক, ৬ ফেব্রুয়ারিঃ সুপ্রিম কোর্টের আদেশ মেনে অযোধ্যা জেলায় মসজিদ বানানোর জন্য ৫ একর জমি বরাদ্দ করল উত্তরপ্রদেশ সরকার।অযোধ্যা জেলারই সোহাওয়াল তহসিলের অন্তর্গত ধন্নিপুর গ্রামে এই জমি বরাদ্দ করা হয়েছে।অযোধ্যায় প্রস্তাবিত রাম মন্দির থেকে এর দূরত্ব প্রায় ৩০ কিলোমিটার।

উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী শ্রীকান্ত শর্মা জানান, লখনউ জাতীয় সড়কে অযোধ্যার ধানিপুরে ওই জমি দিয়েছে সরকার, যা জেলা সদর দফতর থেকে ১৮ কিলোমিটার দূরে।অযোধ্যা শহর থেকে ৪২ কিলোমিটারের মধ্যে ওই জায়গাটি চিহ্নিত করেছে উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথের সরকার।

তবে এই জমি মুসলমানরা নেবে কিনা এখনও ঠিক নেই।সুন্নি সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ড ২৪ তারিখ বৈঠক ডেকেছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য।মুসলিম পারসোনাল ল বোর্ড সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন ফাইল করার কথা ভাবছে।

সংস্থার সচিব বলেন যে একটা মসজিদের জায়গায় তাদের খালি জমি দেওয়া হচ্ছে, যেটা মেনে নেওয়া যায় না। ওয়াকফ বোর্ড আগেই জানিয়েছে তারা আদালতে যাবে না এই বিষয়ে। মৌলানা খালিদ মাহালি বলেন যে ট্রাস্ট গঠন হওয়ার পর এবার রাম মন্দির সম্পর্কিত রাজনীতি বন্ধ করা উচিত।মহিলা পার্সোনাল ল বোর্ডের প্রধান শায়েস্তা আম্বের বলেছেন যে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের এই পাঁচ একর জমি মুসলমানদের হিতে ব্যবহার করা উচিত।

গত নভেম্বরে রামজন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলায় বিতর্কিত জমি হিন্দুপক্ষকে দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।অন্যদিকে মুসলমানদের অযোধ্য জেলার মধ্যে ৫ একর জমি মসজিদ নির্মাণের জন্য দেওয়ার কথাও বলে শীর্ষ আদালত।সেই মোতাবেক এদিন কাজ হল।