‘যাঁদের দ্বিতীয় স্ত্রী বিদেশি, তাঁরাই নোবেল পাচ্ছেন’, বেলাগাম রাহুল সিনহা

440

ওয়েব ডেস্ক, ১৯ অক্টোবরঃ তথাগত রায়, দিলীপ ঘোষ, পীযূষ গোয়েলের পর নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে বেফাঁস মন্তব্য করে এবার বিতর্কে জড়ালেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। অভিজিতের সমালোচনা করতে গিয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বসলেন তিনি। তুলে আনলেন তাঁর স্ত্রীর কথাও। একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‌যাঁদের দ্বিতীয় স্ত্রী বিদেশি, মূলত তাঁরাই কিন্তু নোবেল পেয়ে যাচ্ছেন। নোবেল পাওয়ার জন্য এটা কোনও ডিগ্রি কি না জানি না। পীযূষ গোয়েলের বক্তব্য সঠিক। কারণ অভিজিৎবাবুরা দেশের অর্থনীতিকে বামপন্থার নীতিতে চালাতে চাইছে। কিন্তু এ দেশে বামপন্থাই অচল হয়ে রয়েছে।’‌

এর আগে এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েলও নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদের ভাবনাচিন্তা নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন। শুক্রবার পুনেতে সাংবাদিক সম্মেলনে নোবেল জয়ীর মতাদর্শ এবং তাঁর ভাবনাচিন্তা নিয়ে কটাক্ষ করেন তিনি। পীযূষ গোয়েল বলেন,‌ ‘নোবেল জেতার জন্য অভিজিৎ ব্যানার্জিকে আমি অভিনন্দন জানাই। কিন্তু আমরা সবাই ওনার ভাবনা চিন্তা সম্পর্কে জানি। তিনি বামপন্থায় বিশ্বাসী। পাশাপাশি অভিজিৎ কংগ্রেসের ন্যায় প্রকল্পের অনেক গুণগান করেছিলেন। পরামর্শও দিয়েছিলেন। কিন্তু দেশবাসী তাঁর সেই ভাবনাকে ছুড়ে ফেলে দিয়েছে।’ ‌‌

এদিকে, রাহুল সিনহার এই মন্তব্যকে নিয়ে ইতিমধ্যেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও কটাক্ষের সুর উঠেছে। প্রসঙ্গত, পীযূষ গোয়েল বা রাহুল সিনহাই শুধু নন, নোবেল পাওয়ার পর থেকেই অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধতে শুরু করেছ গেরুয়া শিবির । এর আগে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিজিৎকে ‘অর্ধেক বাঙালি’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন। এরপর মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায় টুইটারে লেখেন, অভিজিতের মিডলনেম কেন বিনায়ক? কেন তাঁর বাবার নাম রাখা হয়নি।