রাজ্যে যুবশ্রীতে চাকরি পেল ৭০ হাজার যুবক-যুবতী, জেনে নিন আবেদনের পদ্ধতি

1842

ওয়েব ডেস্ক, ১৮ জানুয়ারিঃ ‘যুবশ্রী’ প্রকল্পে রাজ্যের ৭০ হাজার যুবক-যুবতি চাকরি পেয়েছে বলে নবান্ন সুত্রে দাবী করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এই প্রকল্পের অধীনে আরও ৭০ হাজার যুবক-যুবতীকে এখন ভাতা প্রদান করা হচ্ছে বলেও দাবী করেছে সরকার।

রাজ্যে ক্ষমতায় এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছিল বাংলায় বেকারত্ব কমানো। সেই লক্ষ্যেই তিনি ২০১৩ সালে চালু করেন ‘যুবশ্রী’ প্রকল্প। সেই প্রকল্প অনুযায়ী বেকার যুবক-যুবতীদের অনলাইনে আবেদন জানাতে হয় রাজ্য সরকারের কাছে। তারপর রাজ্য সরকার ওই আবেদনকারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা দেখে তাঁদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে। সেই প্রশিক্ষণ শেষে মেলে চাকরি। প্রশিক্ষণ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও যতদিন না ওই প্রশিক্ষণপ্রাপকেরা চাকরি পাচ্ছেন ততদিন তাঁদের রাজ্য সরকারের তরফে দেওয়া হয় ভাতা। ২০১৯ সালে যুবশ্রী প্রকল্পের ৬ বছর সম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই ৬ বছরের মধ্যে রাজ্যের ৭০ হাজার যুবক-যুবতী এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিয়ে এখন চাকরি করছে। তাঁদের জায়গায় আরও ৭০ হাজার যুবক-যুবতীদের এখন ভাতা প্রদান করা হচ্ছে বলে দাবী নবান্নের।

মোট প্রায় ৩৪ লক্ষ যুবক-যুবতী এই প্রকল্পে যোগদান করতে চেয়ে অনলাইনে আবেদন জানিয়েছে। এতে নাম নথিভুক্ত হয়েছে এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জেও।গত ৬ বছরে প্রশিক্ষণ প্রাপকদের মধ্যে দেড় লক্ষ যুবক যুবতিকে প্রতি মাসে রাজ্যের তরফে ১৫০০টাকা করে ভাতা দেওয়া হচ্ছে।