পাট চাষীদের, শ্রম এবং সময় লাভ করে পাট পচানোর সহায়তার উদ্দেশ্যে প্রশিক্ষণ শিবির

62

মলয় দে, নদীয়াঃ আজ নদীয়ার শান্তিপুর কদমপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শান্তিপুর এলাকার ১০০ জন তপশিলি জাতি ভুক্ত পাট চাষীদের নিয়ে একটি বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবির এর আয়োজন করা হয়েছিল আই সি এ আর নিনফেডের পক্ষ থেকে। সহযোগিতায় ছিল নদীয়া অর্গানিক ফার্মার প্রডিউসার কোম্পানি। নদীয়া জেলার শান্তিপুর সহ বিভিন্ন জায়গায় পাট উৎপাদন হয়ে থাকে। কিন্তু সেই সব পাট পচানো হয়ে থাকে নিম্নমানের জলে। রয়েছে জলের অভাবও। ফলে পাটের গুণগত মান অনেকটাই কমে যায়। পাট পচাতে সময় লেগে যায় প্রায় আঠারো/ কুড়ি দিন।

আই সি এ আর নিনফেডের গবেষক বিজ্ঞানী ডাঃ সঞ্জয় দেবনাথ এর দাবি, তাদের এই সমস্ত নতুন একটি কেমিক্যাল পাউডার বার করেছে। সেই পাউডার জলের সঙ্গে মিশিয়ে সেই জলে পাট পচানো  হলে খুব কম সময়ের মধ্যেই ভালো গুণগতমানের পাট তৈরি হবে। শুধু তাই নয় পরের ফসল ধান লাগানোর মধ্যে সময়সীমা খুব কম থাকার কারণে চাষিরা নাজেহাল হয়ে যান, সেক্ষেত্রেও বাড়তি সময় পাবেন বেশ কিছুদিন। তার কার্যক্ষমতা অনেক বেশি হবে। এটি এক বিঘা জমিতে ৫ কিলোগ্রাম ওই ধরনের কেমিক্যাল পাউডার লাগবে। কিভাবে পাট পাউডার মিশিয়ে পচানো যাবে, সে বিষয়ে তারা ১০০ জন চাষীকে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। এবং প্রত্যেককে কুড়ি কেজি করে ওই পাউডার তারা বিনামূল্যে দিয়েছেন। আগামী দিনেও তারা এই ভাবে চাষীদের নিয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে গোটা রাজ্যে পাটের গুণগত মান বৃদ্ধির চেষ্টা চালিয়ে যাবেন। অন্যান্য রাজ্যের চাষীদের ক্ষেত্রেও তারা এই ধরনের প্রচেষ্টা চালাবেন।

নদীয়াঅর্গানিক ফার্মার প্রডিউসার কম্পানির ডিরেক্টর সমীর সরকার জানিয়েছেন, সারাদিন ধরে চাষীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য তারা খাওয়া-দাওয়াসহ সবরকম বন্দোবস্ত করেছেন। তাদের সহযোগিতায় নিয়েই এই প্রোগ্রাম করা হচ্ছে।