লিঙ্গ বৈষম্যকে ভুলে সাধারণ মানুষের মত বাঁচতে চাওয়ার অধিকার আইনি ভাবে পেলেও প্যানেল ডিসকাশনে করলেন রূপান্তরকামীরা

9

তুষারকান্তি বিশ্বাস, ইসলামপুর: আমরা একজন মানুষ হিসেবে বাঁচতে চাই। এই বার্তা দিয়েই আইপিসি ৩৭৭এর বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা চক্র ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করলো দিনাজপুর নতুন আলো। স্থানীয় মা বাসন্তী লজে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী নৃত্যে সবাইকে মাতিয়ে দেন টুকাই রায়। প্যানেল ডিসকাশনে অংশ গ্রহন করেন রূপান্তরকামী পুরুষ কবিরা, কোচবিহার থেকে আসা রূপান্তরকামী সুমি দাস, কবি নিশিকান্ত সিনহা, সাংবাদিক সুশান্ত নন্দী, সমাজ কর্মী সম্পা শেঠ, আইনজীবি শবনম পারভীন, কাউন্সিলর  মুজাফফর হোসেনরা।

সমাজের মূল স্রোতে দাঁড়িয়ে সকলের সঙ্গে এক সাথে কাজ করবার স্বীকৃতির বিষয় উঠে আসে আলোচনায়। লিঙ্গ বৈষম্যকে তুলে দিয়ে সাধারণ মানুষের মত বাঁচতে চাওয়ার অধিকার আইনি ভাবে পেলেও অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না এখনও। এসবই উঠে আসে আলোচকদের আলোচনায়। এছাড়াও নারী এবং রূপান্তরিত নারী এবিষয়েও আলোকপাত করেন আলোচকরা। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লেখিকা মৌসুমী নন্দী, সমাজকর্মী স্বরূপনান্দ বৈদ্য, অর্পিতা দত্ত প্রমুখ।

উত্তর দিনাজপুর নতুন আলো সংস্থার সম্পাদক জয়িতা মন্ডল যিনি ভারতবর্ষের প্রথম রূপান্তরকামী লোক আদালতের বিচারক; তিনি জানান, আমরাও সাধারণ মানুষের মতো বাঁচতে চাই। তাই এই বিশেষ দিনটিতে সমাজের বিভিন্ন স্তরের বিশিষ্ট মানুষদের নিয়ে এই প্যানেল ডিসকাশন। আলোচকদের কাছ থেকে অনেক প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পেতে চেয়েছেন সংস্থার সদস্যরা।