প্রকাশ্যে মলত্যাগ করায় ২ দলিত শিশুকে পিটিয়ে খুন, গ্রেফতার ২

20

ওয়েব ডেস্ক, ২৬ সেপ্টেম্বরঃ খোলা জায়গায় মলত্যাগ করায়, দুই দলিত শিশুকে পিটিয়েই মেরে ফেলার অভিযোগ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নিহত দুই শিশুর নাম রোশানি (১২) ও অবিনাশ (১০)। ঘটনাটি ঘটেছে, মধ্যপ্রদেশের শিবপুরী জেলার ভাওখেড়ী গ্রামে। অভিযোগ পাওয়ার পরে গ্রামের দুই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। পরে তাদের দু-জনকেই গ্রেফতার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ১০ বছর বয়সী খুড়তুতো ভাই অবিনাশকে নিয়ে পঞ্চায়েত অফিসের কাছে শৌচকর্ম সারতে গিয়েছিল ১২ বছরের রোশনি। সেই সময় তাদের উপর চড়াও হাকিম যাদব এবং রামেশ্বর যাদব নামের ওই এলাকারই বাসিন্দা দুই যুবক। ছেলেমেয়ে দু’টিকে লাঠি দিয়ে পেটাতে শুরু করে তারা। তাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে রোশনি ও অবিনাশ। সেই অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয় মানুষ। কিন্তু সেখানে ওই দুই শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

নিহত অবিনাশের বাবা মনোজ বাল্মীকির অভিযোগ, তাঁরা দলিত বলে, গ্রামে বৈষম্যের শিকার। তাই সামান্য কারণে, দুই শিশুকে এ ভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলতে গ্রামবাসীদের বিবেকে বাধল না। তিনি জানান, দু-জনকে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে, রাস্তার উপরেই আধমরা করে ফেলে রেখেছিল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যেতে যেতেই অবিনাশ ও রোশানি মারা গিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় হাকিম সিং যাদব ও রামেশ্বর যাদব নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে হাকিম সিংয়ের মানসিক সুস্থতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, নিগ্রহ করার আগে ফোনে দুই নাবালকের ছবি তুলে রাখা হয়েছিল। শিবপুরীর পুলিশসুপার রাজেশ চাণ্ডেল জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। আইপিসি’র ৩০২ (খুন) ধারা ছাড়াও এসসি/এসটি নৃশংসতা প্রতিরোধ আইনে পৃথক মামলা রুজু হয়েছে। যদিও, দলিত বলেই যে দুই নাবালককে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে, এটি মানতে চাননি পুলিশকর্তা।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।