তফসিলি পড়ুয়াদের কুৎসিত মন্তব্য, অধ্যাপিকার বিরুধ্যে মামলা

198

ওয়েব ডেস্ক,২৩ মেঃ তফসিলি জাতি ও উপজাতি ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কুৎসিত মন্তব্যের অভিযোগে অপধ্যাপিকা সীমা সিং কে খড়গপুর আইআইটি থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল। এবার অধ্যাপিকা সীমা সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হল। জানা গিয়েছে, খড়গপুর টাউন থানায় তফসিলি জাতি ও উপজাতি নিপীড়ণ বিরোধী আইন ১৯৮৯ অনুযায়ী এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই মামলা দায়ের করেছেন খড়গপুর টাউন থানার আইসি রাজা মুখোপাধ্যায়।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত এই অধ্যাপিকা বর্তমানে করোনা আক্রান্ত। তাই এখনই তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না। অধ্যাপিকা সুস্থ হওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে গ্ৰেফতারও করা হতে পারে। উল্লেখ্য, ১৬ এবং ২৩ এপ্রিল তফসিলি জাতি–উপজাতির পড়ুয়াদের প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে একটি প্রশিক্ষণ হয় অনলাইনে। অভিযোগ, তখন এই সম্প্রদায়ের পড়ুয়াদের কুৎসিত ও অবমাননাকর মন্তব্য করেন খড়গপুর আইআইটির কলা ও সমাজ বিজ্ঞানের এই অধ্যাপিকা সীমা সিং।

এই কুৎসিত ও অবমাননাকর মন্তব্য দ্রুত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। দেশজুড়ে অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় উঠে। তখন চাপে পড়ে খড়গপুর আইআইটি কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। আর সাসপেন্ড করা হয় অধ্যাপিকা সীমা সিংকে। তারপর খড়গপুর টাউন থানার পুলিশ রাজ্য সরকারের নির্দেশে একটি স্বতঃস্ফূর্ত মামলা দায়ের করে এই অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে।