যৌন হেনস্তায় বাধা দেওয়ায় যোগীরাজ্যে নাবালিকাকে স্যানিটাইজার খাওয়াল ৪ দুষ্কৃতী! পরে হাসপাতালে মৃত্যু

0
19

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ২ অগাস্ট, লখনউঃ যৌন হেনস্তায় বাধা দেওয়ায় ১৬ বছরের নাবালিকাকে জোর করে স্যানিটাইজার খাওয়াল দুষ্কৃতীরা। এর পরেই অসুস্থ হয়ে পড়ে নাবালিকা। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও শেষরক্ষা হয়নি। মঙ্গলবার সেখানেই মৃত্যু হয় নাবালিকার। ঘটনার প্রতিবাদে নাবালিকার দেহ রাস্তায় রেখে বিক্ষোভ দেখান পরিবার এবং প্রতিবেশীরা। পরে পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ ওঠে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছিল গত ২৭ জুলাই উত্তরপ্রদেশের মাঠ লক্ষ্মীপুর এলাকায়। ১৬ বছরের ওই কিশোরী স্থানীয় একটি স্কুলের একাদশ শ্রেণির পড়ুয়া ছিল। ঘটনার দিন স্কুল থেকে ফিরছিল সে। সেই সময় উমেশ রাঠোর নামে ২১ বছরের এক যুবক তার পথ আটকে দাঁড়ায়। নাবালিকার শ্লীলতাহানির করে সে। আরও তিন যুবক যোগ দেয় উদেশের সঙ্গে। তাঁরাও যৌন হেনস্তা করে নাবালিকার। এই কাজে বাধা দেওয়ায় একাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে জোর করে স্যানিটাইজার খাইয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

ঘটনাস্থলে নাবালিকার ভাই পৌঁছে চার যুবককে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তাকেও মারধর করা হয়। এদিকে স্যানিটাইজার খাওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়ে নাবালিকা। তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায তাকে সরকারি জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেই গতকাল মৃত্যু হয় নাবালিকার।

ঘটনা জানাজানি হতেই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। ময়নাতদন্তের পর দেহ পরিবারের হাতে দিলে নাবালিকার দেহ রাস্তায় রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন পরিবার ও প্রতিবেশীরা। আড়াই ঘণ্টা ধরে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ চলে। পুলিশ অপরাধীদের দ্রুত গ্রেপ্তারি এবং উপযুক্ত শাস্তির আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। ঘটনায় ইতিমধ্যে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার রাহুল ভাটি। তিনি জানিয়েছেন, অপরাধীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here