আজ বাজপেয়ীর ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী, শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী

59

ওয়েব ডেস্ক, ২৫ ডিসেম্বরঃ আজ দেশের প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী। এই উপলক্ষে বাজপেয়ীর স্মৃতিতে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি রামনাথ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, বিজেপির কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা এবং প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি অটল বিহারী বাজপেয়ীকে শ্রদ্ধা জানান। তার আগে সকালে প্রধানমন্ত্রী টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। ভিডিওতে গুণাবলী এবং দেশের রাজনীতি বোঝার জন্য বাজপেয়ীর প্রশংসা করতে শোনা যায়। প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, “অটলজি-কে তাঁর জন্মদিনে শ্রদ্ধাঞ্জলি। তিনি যে ভারতের স্বপ্ন দেখেছিলেন আমরা সেই ভারত তৈরির প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

অসাধারণ ভাষণীর জন্য সমাদৃত ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। অটল বিহারী বাজপেয়ী তিনবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। বাজপেয়ী নিজে কবি ছিলেন। স্পষ্ট ও আবেগপূর্ণ ভাষণ দেওয়ার সঙ্গে তিনি হাসি-মশকরাও করতেন। ১৯৯৬ সালে তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের আলোচনায় লেকসভায় অটল বিহারী বাজপেয়ী একটি আকর্ষণীয় ভাষণ দিয়েছিলেন। যদিও তিনি তাঁর সরকারের পতন বাঁচাতে পারেননি। জাতির সেবার প্রতি তাঁর দায়বদ্ধতার বিষয়ে তিনি সেদিন বক্তব্য রেখেছিলেন। তিনি বলেন, “আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ শক্তির কাছে মাথা নত করি। আমরা আপনাদের আশ্বস্ত করছি যে দেশের স্বার্থে আমরা যে কাজ শুরু করেছি তা শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা বিশ্রাম করব না।”

২০১৫ সালে অটল বিহারী বাজপেয়ীকে ভারতের সর্বোচ্চ সম্মান ভারতরত্ন উপাধিতে ভূষিত করা হয়। বাজপেয়ীর জন্ম ১৯২৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর, তাঁর মা ছিলেন কৃষ্ণা দেবী এবং বাবা ছিলেন কৃষ্ণবিহারী বাজপেয়ী।অটল বিহারী বাজপেয়ী ১৯৯৯ সালে বিজেপির আদর্শগত পরামর্শদাতা হিসাবে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘে যোগ দেন।