ভাগ্যের কি পরিহাস, কোটিপতি এখন পথের ভিক্ষারী !

2580

ওয়েব ডেস্ক, ২৫ অক্টোবর: আপনারা হয়ত শুনে থাকবেন ভিক্ষুক থেকে কোটিপতি হওয়ার গল্প অনেক রয়েছে। আবার উল্টোটাও দেখা গেছে। কোটিপতি থেকে পথের ভিখারী হয়েছেন কেউ কেউ। এরজন্যই বলা হয়ে থাকে বিধাতা চাইলে আজ যিনি রাজা কাল তিনি ভিক্ষুকে পরিণত হন। তারই এক জ্বলন্ত প্রমাণ বাংলাদেশের  কক্সবাজার এলাকার রামুর অধিবাসী মহাম্মদ আজিম।

স্থানীয়রা তাকে পাগল আজিম বলেই ডাকে। দীর্ঘদিন আগে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন এই ব্যক্তি। কিন্তু কয়েক বছর আগেই তিনি ছিলেন রামু উপজেলার তেচ্ছিপুল এলাকার অন্যতম ধনী ও কোটিপতি। আর এখন উদ্দেশ্যহীন দ্বারে দ্বারে, পথে প্রান্তরে ঘুরে বেড়ান তিনি। ভিক্ষা করে ১০টাকা পেলেই মহাখুশীতে নাচতে থাকেন।

অথচ এই ব্যক্তি কয়েক বছর আগে দুই হাতে টাকা ওড়াতেন। বিলাসবহুল জীবনে ছিলেন অভ্যস্ত। টাকা খরচ করতেন জলের মতো। তার বাড়িটিও ছিল দেখার মতো। তিনি চড়তেন বিদেশি গাড়িতেও। হাতের মোবাইল ফোনটি ছিল সে সময়ের সেরা মোবাইল ফোনটি ব্যবহার করতেন। গহনায় মুড়িয়ে রেখেছিলেন স্ত্রীকে। স্ত্রীকেও কিনে দিয়েছিলেন দামী মোবাইল। আর পাঁচটা ধনীর মতোই চাকচিক্যে ভরা ছিল তার জীবন।

কিন্তু অদ্ভুত এক খেলা নিমেষের মধ্যে যেন সুখের জীবনটাকে শেষ করে দিয়েছে ওই আজিমের। সে বর্তমানে ভিখারী। রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়ায় সারাদিন কারও কাছ থেকে ১০ টাকা পেলে খুশি হলে যায়। তিনি এখন মানসিক ভারসাম্যহীন হলে এই সুন্দর পৃথিবীতে পাগল হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে।