“আর্থিক মন্দা কই ? হলে ৩টি সিনেমা ১২০ কোটি টাকার ব্যবসা করত না” হাস্যকর দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

423

ওয়েব ডেস্ক, ১৩ অক্টোবরঃ ঝিমিয়ে পড়েছে দেশের অর্থনীতি। মন্দার মাসুল কম-বেশি বুঝতে পারছেন সাধারণ মানুষও। তবে মানতে নারাজ কেন্দ্রীয় সরকার। অর্থনৈতিক মন্দার অভিযোগ হাওয়ায় উড়িয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। তাঁর দাবি, ওসব আর্থিক মন্দার অভিযোগ একেবারেই মনগড়া। তা না হলে কী করে একইদিনে ৩টে হিন্দি ছবি ১২০ কোটি টাকার ব্যবসা করতে পারে!  

শনিবার মুম্বইয়ে একটি সাংবাদিক বৈঠকে রবিশংকর প্রসাদকে আর্থিক বৃদ্ধির হারে মন্দা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি হেসে ওঠেন৷ তারপরেই বলেন, ‘প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমলে আমি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ছিলাম৷ আমি সিনেমা দেখতে খুবই পছন্দ করি৷ চলচ্চিত্র কিন্তু দারুণ ব্যবসা করছে৷ ২ অক্টোবর তিনটি ছবি রিলিজ করেছে৷ চিত্র সমালোচক কোমল নাহতা আমায় জানালেন, ২ অক্টোবর ন্যাশনাল হলিডে-তে তিনটি ছবি ১২০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে৷ এটা তো ভালো লক্ষণ৷’

এদিকে আইনমন্ত্রীর এহেন যুক্তিকে খণ্ডন করেছে অনেকেই। রবিশঙ্করের তত্ত্বকে হাস্যকর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। একদিন আগেই পরিসংখ্যান মন্ত্রক আগস্ট মাসের শিল্প-উৎপাদনের তথ্য পেশ করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, দেশে শিল্প উৎপাদনের হার ১.১ শতাংশ কমেছে, যা গত মাসে ৪.২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল। অটোমোবাইল বিক্রি অগস্ট মাসে সবচেয়ে খারাপ। সবচেয়ে কমতে দেখা গেছে যাত্রীবাহী যানবাহন এবং দু’চাকার গাড়ির বিক্রি। আর্থিক মন্দার কারণে এই সেক্টরগুলিতে অবনতি লক্ষ্যণীয় বলে জানিয়েছে শিল্পসংস্থাগুলি। শিল্প সংস্থা সিয়াম জানিয়েছে, ১৯৯৭-৯৮ সালে পাইকারি গাড়ির বিক্রয় ডেটা রেকর্ডিং শুরু করা হয়েছি্ল। তার পর থেকে দেশে সামগ্রিক যানবাহন বিক্রিতে এবার রেকর্ড পতন হল।