মাছ ধরতে গিয়ে করণদিঘিতে মৎস্যজীবীদের জালে উঠল পঞ্চায়েতের ব্যালট বাক্স, চাঞ্চল্য এলাকায়

0
42

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ২৯ জুলাই, করণদিঘি: মাছ ধরতে গিয়ে মৎস্যজীবীদের জালে উঠে এল পঞ্চায়েত ভোটের ব্যালট বাক্স। শুক্রবার বিকেলে উত্তর দিনাজপুর জেলার ডালখোলা থানার আন্ধারিয়া গ্রামের ঘটনা। এই ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল করণদিঘি জুড়ে।

শুক্রবার ওই আন্ধারিয়া গ্রামের  বেলুয়ার অদুরে খুদি পুকুরে মাছ ধরছিলেন জেলেরা। সে সময় জালে ওঠে ওই ব্যালট বাক্স। বাক্সের গায়ে লেখা কেডিআই-২৫। ব্লক প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, ব্যালট বাক্স ছিনতাই হওয়ার অভিযোগে নতুন করে ভোট হয়েছিল ওখানে। তবে সেটি ছিল ২২৫ নম্বর বুথ। আর এখানে ব্যালট বাক্সে ২৫ লেখা থাকায় ধন্দে পড়েছেন তাঁরাও।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাক্সটি বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ। খবর দেওয়া হয় করনদিঘি ব্লকের বিডিও নিতিশ তামাং কে। বিডিও নীতিশ তামাং জানান, ৮ তারিখ ভোটের পরেই তাঁরা জানতে পারেন ২৫ নম্বর বুথে গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলাপরিষদের তিনটি ব্যালট বাক্সই লুঠ হয়েছে। তাই ২৫ নম্বর বুথে নতুন করে ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। সেইমতোই ১০ তারিখ ফের ভোট হয়।

তিনি বলেন, “যে তিনটি ব্যালট বাক্স লুঠ হয়েছিল তার মধ্যে আগে একটি পাওয়া গেছিল। পুকুর থেকে আরেকটা বাক্স পাওয়া গেল। এখনও একটা বাক্সের খোঁজ মেলেনি।”

ব্যালট বাক্সে লেখা নম্বর নিয়ে বিভ্রান্তিও দূর করে বিডিও বলেন, “পঞ্চায়েত পার্ট আর বিধানসভা পার্ট আলাদা। সেই কারণেই এই ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল।”

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই রাজ্যে অনুষ্ঠিত হয় ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচন। ১১ জুলাই ভোট গণনার দিন বিরোধীরা শাসক দলের বিরুদ্ধে করদিঘি বিধানসভার ডালখোলা থানার ২৫ নং বুথের ভোট গণনা নিয়ে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ করেছিল। এরপরেই ওই কেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here