পূজার বিচারক হিসেবে মণ্ডপে যশ-রত জুটি

93

ওয়েব ডেস্ক, ১২ অক্টোবরঃ টলি টাউনে এখন চর্চার মুখে ‘যশরত’ জুটি। ঈশানের জন্মের দিন কয়েক পরেই ক্যামেরার সামনে প্রথম দেখা গিয়েছিল নুসরতকে। তখনও তিনি সিঙ্গেল মাদার হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। তবে যত দিন গিয়েছে ‘যশরত’ জুটির সম্পর্কের সমীকরণ বদলেছে। নুসরতের সন্তানের পিতৃ পরিচয় সামনে এসেছে। জানা গেছে যশের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথাও।

তবে, একরত্তি ছেলেকে বাড়িতে রেখে নুসরতের ঠাকুর দেখতে বেরনো মানতে পারছেন না অনেকেই। আসলে অভিনেত্রী নুসরত জাহানের ওপর সোশ্যাল মিডিয়ার কড়া নজর থাকে। সোমবার পুজোর বিচারক হিসেবে তাঁকে দেখা গিয়েছিল কলকাতার নানা মণ্ডপে। সঙ্গে আবার স্বামী যশ দাশগুপ্ত। আর তাতেই প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। মা হওয়ার পর প্রথম পুজো। সেখানে ছেলেকে বাড়িতে ফেলে কীভাবে এত আনন্দ করছেন ‘যশরত’ জুটি, সেটাই যেন এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।  নুসরত পুজো পরিক্রমার সময় বারবার মাস্ক পরে ঠাকুর দেখার কথা বলেছেন। নিজেও জানিয়েছেন, ক্যামেরার সামনে আসার জন্যই তিনি মাস্ক খোলেন। সঙ্গে রাখেন স্যানেটাইজারও।

তবে, সেসবে মন গলেনি কারও। এমনিতেই নুসরতের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একেক দিন একেক খোলাসা হচ্ছে। এই যেমন নুসরত রবিবার যশের জন্মদিনের দিন ‘হাজবেন্ড’ লেখা কেক যশকে দিয়ে কাটিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি এখন বিবাহিত। বুঝিয়ে দিয়েছেন বিশ্বকর্মা পুজোয় যশের নামেই সিঁদুর তুলেছিলেন মাথায়।